রবিবার, ৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৭

গল্পপাঠ ।। ভাদ্র ১৪২৪।। আগস্ট-সেপ্টেম্বর ২০১৭।। সংখ্যা ৫৫

বাংলা কথাসাহিত্যের উন্মেষকালে এবং প্রকাশলগ্নে বংকিমচন্দ্র বৃক্ষবীজটি রোপন করেছিলেন। রবীন্দ্রনাথ নামক দৃঢ় শিকড়ে স্বদেশ স্ব ঐতিহ্যের মাটি আঁকড়ে ডালপাতার বিস্তারে সজীব সতেজ দৃপ্ত আত্মপরিচয়ে তা দাঁড়িয়ে আছে তিন বন্দ্যোপাধ্যায়ের অবদানে।তাদের সমৃদ্ধ অথচ স্বতন্ত্র জীবনদর্শন আর তদজাত সৃষ্টিশীল ভাণ্ডার উত্তরকালের যাত্রীদের জন্য তৈরি করে রেখেছে এক স্পর্ধিত উত্তরাধিকার।বর্তমান বাংলাসাহিত্য তার সকল নিরীক্ষা ও বৈশ্বিক অভিজ্ঞান নিয়েও এই তিন পূর্বসূরিকে ধারণ করে শ্লাঘায়,অহংকারে। মানিক- বিভূতি - তারাশংকর তিন বন্দ্যোপাধ্যায়কে নিয়ে ধারাবাহিক ভাবে উপস্থাপনের অংশ হিসাবে মানিক বন্দ্যোপাধ্যায়কে নিয়ে আমাদের ভাদ্র সংখ্যার গল্পপাঠের আয়োজন।

থাকছে সময়ের প্রতিনিধিত্বশীল গল্পকারদের ভিন্ন ভিন্ন স্বাদের গল্প। হাতের মুঠোয় বিশ্ব পুরে যারা চুরমার করে দিচ্ছেন রাজনীতি আরোপিত দেশ কিংবা জাতির বিভাজনের দেয়াল।

২২ শ্রাবণ ছিলো বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথের ৭৬ তম প্রয়াণবার্ষিকী। তাঁর কাছে বাংগালির অন্তহীন ঋণের পুনস্মরণ পূনর্বার।

প্রকৃতিতে শরতের আগমনী ঘ্রান। অথচ দেশ ভাসছে প্রকৃতির ভয়ার্ত আর্তনাদে-বন্যার মানবেতর স্রোতে।প্রকৃতির বিরূপতাকে জয় করেই সভ্যতার অগ্রযাত্রা। শুভ বোধের বোধনে পুণপুণ জয় হোক মানুষের।
--রুমা মোদক
সম্পাদক
ভাদ্র ১৪২৪ সংখ্যা

মানিক বন্দ্যোপাধ্যায়কে নিয়ে আয়োজন
গল্প
মানিক বন্দ্যোপাধ্যায়ের গল্প : প্রাগৈতিহাসিক
মানিক বন্দ্যোপাধ্যায়ের গল্প :  অতসী মামী
মানিক বন্দ্যোপাধ্যায়ের গল্প : টিচার
গদ্য
মানিক বন্দ্যোপাধ্যায়ের গদ্য :  সাহিত্য করার আগে
প্রবন্ধ
১. মানিক বন্দ্যোপাধায়ের ভাষারীতি
হাসান আজিজুল হক
২. মানিক বন্দ্যোপাধ্যায়ের পর্বান্তর
দেবেশ রায়
৩. মানিক বন্দ্যোপাধ্যায়ের গদ্য 
হাসান আজিজুল হক
৪. আমারে নিবা মাঝি?
প্রশান্ত মৃধা

চ্যাপলিন--
অনূদিত লেখাটি চ্যাপলিন অভিনীত বিখ্যাত ছবি ‘দ্য গ্রেট ডিক্টেটর’-এর একদম শেষের দৃশ্য; যা মূলত একটা ভাষণ; আর সেই ভাষণটি ছিল মানুষ হিসেবে আমাদের যে জীবনটিকে যাপন করার কথা ছিল আমরা যেন সেই জীবনের পটভূমিতে এসে দাঁড়াই- তার আহ্বান। জীবনের মৌল ভিত্তিটিকে খুঁজে বের করার এক অমোঘ আহ্বান ছিল চ্যাপলিনের সেই ভাষণটি।
দ্য গ্রেট ডিক্টেটর' ছবিতে চ্যাপলিনের শেষ ভাষণ
অনুবাদ : এমদাদ রহমান
Charlie Chaplin - The Great Dictator (Final Speech)--লিংক


মেহিকান অনুবাদ গল্প
খোদার কাছে চিঠি


গ্রেগরিয়ো লোপেস ই ফুয়েন্তেস
 অনুবাদ : সাকী সেলিমা





অমর মিত্রের গল্প : বরেণ সান্যালের নীরবতা
বরেনের বয়স সাতাত্তর। একবছর করে বয়স বেড়ে বেড়ে বরেন সান্যাল এই বয়সে পৌছেছেন। জন্মদিনে বয়স বাড়ে। কত বাড়বে বাড়ুক। জন্মদিন নিঃশব্দে পার হয়ে গেলে বরেন পুরোন বাড়ি ছেড়ে নতুন বাড়িতে যান। একা মানুষ। তিনি একাই থাকেন। গত তিরিশ বছর একা কেটেছে বরেনের। তার আগে দিদি থাকত সঙ্গে। দিদিও বিয়ে করেননি কিংবা বিয়ে হয়নি দিদির। দিদির কি প্রেম ছিল ? জানেন না বরেন। বিস্তারিত>>
স্বপ্নময় চক্রবর্তী'র গল্প : স্বস্ত্যয়ন

জাজিমের উপর নরম তোশক, তার উপর মৃগচর্ম পাতা, রক্তবর্ণ তাকিয়া দুপাশে, মাঝখানে বসে আছেন গুরুদেব স্বামী অঘোরানন্দ। হরিদ্রাবর্ণের উপবীত, মাংসল দেহ নির্লোম, হাতে অস্থির জপের মালা । একটু আগে গুরুবন্দনা শেষ হল। শঙ্খবাদ্য ও ঘণ্টাধ্বনি হল। ধূপময় ঘর। বিস্তারিত>>



ইন্টেরিয়ার ক্যাফে নাইট
শর্ট ফিল্ম
অভিনয়ে নাসিরুদ্দিন শাহ



:
আর্জেন্টিনার গল্প
মার্গারিটা কিংবা ওষুধের ক্ষমতা
মূল : আদোলফো বিখয় কাসারেস
অনুবাদ- জয়া চৌধুরী

আর্জেন্টিনার সর্বকালের অন্যতম শ্রেষ্ঠ কবি নোবেল বিজয়ী খোর্খে লুইস বোর্খেস এর সঙ্গে যৌথ ভাবে প্রচুর বই লেখেন তিনি। বিবাহ করেন ভিক্টোরিয়া ওকাম্পোর বোন লেখিকা সিলভিনা ওকাম্পোকে। ওক্তাভিও পাস তাঁর লেখায় ‘প্রেম’ সম্পর্কে বলেছিলেন – “ বিওয় কাসারেসের প্রেম একটা বাস্তব দৃষ্টিভঙ্গী। সম্পূর্ণ ও স্বচ্ছন্দ। অবাস্তব দুনিয়ার কিছু নয় বরং আমাদের চেনা।” স্প্যানিশ ভাষার শ্রেষ্ঠ সাহিত্য পুরষ্কার সেরভান্তেস পুরস্কারে সম্মানিত হন তিনি। তাঁর মৃত্যু হয় বুয়েনোস আইরেসেই ১৯৯৯ সালে। বিস্তারিত>>

হারুকি মুরাকামির গল্প ‘দা ইয়ার অফ স্প্যাগেটি’
অনুবাদ: রিয়াদ চৌধুরী
ঊনিশ’শো একাত্তর সালে আমি বেঁচে থাকার জন্যে স্প্যাগেটি রান্না করতাম, এবং স্প্যাগেটি রান্নার জন্যেই বেঁচে ছিলাম। অ্যালুমিনিয়ামের কড়াই থেকে উঠে আসা স্প্যাগেটির ধোঁয়া ছিল আমার গর্ব ও আনন্দ, আর সসপেনে ফুটতে থাকা টমেটো সস ছিল তখন আমার জীবনের একমাত্র আশা। বিস্তারিত>>

আফ্রিকার গল্প : এক মুঠো খেজুর
মূল: তায়েব সালিহ
অনুবাদ: ফজল হাসান

এক মুঠো খেজুর’ গল্পটি তায়েব সালিহর ইংরেজিতে ‘এ হ্যান্ডফুল অফ ডেটস্’ ছোটগল্পের অনুবাদ । আরবীতে গল্পটি ১৯৬৪ সালে প্রথম প্রকাশিত হয় । পরবর্তীতে গল্পটি লেখকের ইংরেজিতে ‘দ্য ওয়েডিং অফ জেইন’ গল্পসংকলনে প্রকাশিত হয় এবং সেখান থেকে নেওয়া হয়েছে । পরবর্তীতে বহুল পঠিত এবং পাঠকমহলে সমাদৃত এই গল্পটি একাধিক আফ্রিকার ছোটগল্প সংকলনে সন্নিবেশিত করা হয়েছে । বিস্তারিত>>

সৈয়দ মনজুরুল ইসলাম'এর গল্প : ডিডেলাসের ঘুড়ি
ইমানের হাতে ঘুড়ি আর লাটাই দেখে হোসেন মিয়া রাগ দেখালেন খুব, যদিও তার রাগার কোনো কারণ নেই, এমনকি (পৃথিবীতে সত্যধর্ম আছে এটা ধরে নিলেও) রাগার তার অধিকারও নেই। কারণ ইমান তার গ্যারেজের কর্মচারী হলেও আজ ছুটির দিন, তদুপরি সময়টা বিকাল। বিস্তারিত>>

শেষ পর্ব
লোহিতক গোষ্ঠীর হাতে নিলয় নামের পৃথিবীর সব মস্তিষ্ক সংরক্ষণাগার ধ্বংস হয়ে যায়। এই কাজে নেতৃত্ব দিয়েছিল অশির ও বিষাণের শিক্ষক রাস্কো। রাস্কো বিষাণ ও অদিতার সন্তান সেনভাকে চাঁদে অপহরণ করে সন্ত্রাসী নেতা অশির হিসাবে গড়ে তোলে, পরে ডামুরির বনে তীর ছুঁড়ে অদিতাকে হত্যা করে। বিশালগড়ের নিলয় ধ্বংস হবার শেষ মুহূর্তে অশির ও পুনরুজ্জীবিত অদিতা মুখোমুখি হয়। অদিতার আঁধারের শেষ এই পর্বে। বিস্তারিত>>

সবগুলো পর্ব এক সঙ্গে পড়ার লিংক



শিমুল মাহমুদ'এর গল্প : কুকুরজীবন
কথিত আছে অতীব প্রাচীনকালে দেবতাগণের দেহে কোনো পাকস্থলি ছিল না। ফলে ক্ষুৎপিপাসার অভিজ্ঞতা তখনও তাদের মেধায় প্রতিস্থাপিত হয়নি। সেই অতীব প্রাচীনকালে সূর্য ও চাঁদ একত্রে পৃথিবীতে বাস করতো। তখন সমুদ্র ছিল চাঁদ-সূর্যের ঘনিষ্ঠ বন্ধু। এই চাঁদ-সূর্য প্রায়ই সমুদ্রের বাড়িতে বেড়াতে যেত। কিন্তু সমুদ্র কখনই চাঁদ-সূর্যের বাড়িতে বেড়াতে আসত না। বিস্তারিত>>

সাগুফতা শারমীন তানিয়া' র গল্প : অত্যাগসহন
আমাদের সামাজিকতার নিয়মই এই, অতি বিরূপ মনোভাব মনে গোপন করেই আত্মীয়তার সুরে মানুষকে ডাকতে হয়। আমিও তাই আপা ডাকলাম।


আমার নাম সিরাজুম মুনীরা, আপনি শুনেছি আমার শাশুড়ির মুখে এই নাম শুনে মুখ বাঁকিয়ে বলেছিলেন, “এহ, এই নামে সেলিম ওর বৌকে ডাকবে নাকি? ওর নাম দেয়া হোক নীরা।আমার নাম হয়ে গেল নীরা। বিস্তারিত>>


শামসুজ্জামান হীরার আয়োজন

শামসুজ্জামান হীরার গল্প :  জীবন

আর্হেন্তিনার গল্প : নিরন্তর নরক
মূল গল্প : আন্দ্রেস নিউম্যান
অনুবাদ : শামসুজ্জামান হীরা

ভদ্রলোকের সাথে পরিচয় পানশালায়। সত্যি কথা বললে গল্পটা লিখতে সুবিধে হয়। মাঝে মাঝে সাকুরায় যেতাম প্রায় বছরদুই একটানা। এখন অবশ্য বনানীর পিকিং এ আসি। লেখকদের জন্য কখনো একা থাকা বাধ্যতামূলক আর সেজন্য পানশালা উৎকৃষ্ট। কোন নারী সঙ্গ আমার নেই মানে স্ত্রী বা প্রেমিকা, বহুবছর হয়েছে দেশের বাড়ি যাইনা। সেখানে পুরনো স্মৃতি লেপ্টে থাকা ছাড়া অবশিষ্ট নেই বিশেষ কিছু। বলা যায় লেখা ও পানীয়ের নেশাটা হচ্ছে জীবনের আকর্ষণ। বিস্তারিত>>

উম্মে মুসলিমা'র গল্প : স্লিভলেস

আমি উচ্চারণ করতাম বাসোনা । কিন্তু ওর মা বলতো, না বাস্না। মানে সোন্দর ঘিরান। ওর দাদির দেয়া নাম। হয়তো শিক্ষিত মানুষ হলে নাম রাখতো সুবাসিনী। তো বাসনাকে নিয়ে ওর মা আমার বাসায় আসে সেই যখন আমার মেয়ে রিমির বয়স চার। বাসনার তখন তিন-টিন। অথবা চারও হতে পারে। ওজনে-উচ্চতায় আমার রিমির অর্ধেক। বাসনার মাকে পেয়ে যেন আকাশের চাঁদ পেলাম। বিস্তারিত>>

রাজীব নূরের গল্প : যখন কান্নায়ও আড়াল তুলতে হয়েছিল
যখন কান্নায়ও আড়াল তুলতে হয়েছিল - এই আগস্টে বাংগালি জাতির ইতিহাসের নির্মম ট্র‍্যাজেডির নায়কেরা যেন দৃষ্টির সম্মুখে অবিরাম হেঁটে যায়। অসাধারণ একটি পরিবারের মানুষগুলো কী সাধারণ হয়ে একদলা অশ্রু হয়ে গলায় আটকে থাকে একটি টুনটুনি পাখির মৃত্যুর প্রতীকী ব্যঞ্জনার সমান্তরালে। পড়ুন রাজীব নূরের গল্প--
রুমা মোদক'এর গল্প : একটি সন্ধ্যা যেভাবে রাত হয়
কালভার্টের উপরে উপুড় হয়ে হুড়মুড় সন্ধ্যা নেমে গেছে। কালভার্টের দু’পাশে অনতিবয়স্ক গাছগুলোর ডালপালা পোঁচ পোঁচ অন্ধকার আঁকড়ে ধরছে অন্যান্য অনেক দিনের চেয়ে দ্রুত, নিশ্চল অভ্যস্ততায় মেনে নিচ্ছে নীড়েফেরা পাখ-পাখালির হল্লা, দু একটা হোন্ডা অভ্যাসমতোই কালভার্ট পার হয়ে পাড়ামুখী হাওয়া হয়ে যায় চারপাশের উদ্দেশ্যে নির্বিকার পাতা ধুলো বাতাসে উড়িয়ে দিয়ে। বিস্তারিত>>

রিমি মুৎসুদ্দি'র গল্প : অদ্ভুত আঁধার
লোডশেডিংটা আচমকাই হল। দিল্লিতে তো আজকাল লোডশেডিং বহুদিন হয় না। ইনভার্টারটা সেই কবে থেকেই খারাপ হয়ে পড়ে আছে। প্রয়োজন পড়ে না তাই সারানোও হয়ে ওঠে না। নিমেষে গোটা ফ্ল্যাট জুড়েই কেমন একটা বোবা নিস্তব্ধতা ছেয়ে গেল। আসলে লোডশেডিং হওয়ার আগে পর্যন্ত টিভিটা চলছিল। নীতিন ভারত-অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট ম্যাচ দেখছিল। টিভিটা বন্ধ হয়ে যাওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই এই দুকামরার ফ্ল্যাট যেন শতাব্দী প্রাচীন মৌন কোন ভাস্কর্য্যের মত নিশ্চুপ হয়ে পড়ে রইল। বিস্তারিত>>


দেবানন্দ সরকার'এর গল্প : মৃত চোখ
সিঁড়ি দিয়ে তিন তলায় উঠতে উঠতে সুমনার মন অতীতে ভেসে বেড়াচ্ছিল। প্রায় কুড়ি বছর পর দেখা হবে আরেফিনের সাথে! এর মধ্যে আরেফিনের সঙ্গে কোনো যোগাযোগ হয়নি। ইমেল, ফেসবুক, টুইটার, ইনস্টাগ্রামের যুগে প্রযুক্তির ইথারে আরেফিনের কোনো পদচিহ্ন নেই। পুরোনো বন্ধুদের সাথে যোগাযোগ রাখে না আরেফিন। বিস্তারিত>>


ধ্রুপদী সঙ্গীত নিয়ে আয়োজন
একজন কথাশিল্পীর ধ্রুপদী সঙ্গীতের সঙ্গে পরিচয় থাকা দরকার। সেদিক থেকে ধানেশ্বরী পণ্ডিত রাই'এর ভারতীয় রাগের মুডের উপর আলোচনাটির লিঙ্ক দেওয়া হলো। তিনি রাগের বিভিন্ন বিষয় খুব সহজ করে আকর্ষণীয় ভঙ্গিতে গানের মধ্যে দিয়ে আলোচনা করেছেন।
ইউটিউবে শুনুন--
Moods in Indian Classical Music

অরুন্ধতী রায়ের 
দ্বিতীয় উপন্যাস নিয়ে দ্য গার্ডিয়ান পত্রিকায় প্রকাশিত সাক্ষাৎকার
২০১১ সালে একবার ঠারে-ঠোরে জানিয়েছিলেন দ্বিতীয় উপন্যাসের কাজ চলছে। তারপর বছরের পর বছর গেল, উপন্যাসের টিকিটিরও দেখা নেই। কারো কারো কাছে অরুন্ধতীকে সাহিত্যিক হিসেবেই বিবেচনা করা কঠিন হয়ে উঠলো। The God of Small Things (‘ক্ষুদ্র জিনিসের ঈশ্বর’) উপন্যাসের ভাষা ছিল বাঙ্ময়, সুক্ষ্ম, ইঙ্গিতময়, কিন্তু অরুন্ধতীর নিবন্ধ-প্রবন্ধের ভাষা আর রাজনৈতিক আন্দোলন নিয়ে অভিযোগ উঠলো যে অরুন্ধতীর ভাষা বড্ড চড়া, অতিসরলীকরণে দুষ্ট। বিস্তারিত>>


তমাল রায়'এর গল্প: পর্যটক
ডক্টর অর্ক তো চেষ্টাই করেছে এত গুলো দিন। চিকিৎসক হয়ে মানুষের রোগ সারানোর আগে দরকার এ অসুস্থ সমাজটার চিকিৎসাটা জরুরী খুউব বলতেন মেডিকেল কলেজের ডাঃ ভৌমিক স্যার।
অর্ক জলের কাছে জল হয়ে উঠতে,পাহাড়ের কাছে ঋজু, তারপর যখন মরুভুমির কাছে এলো,ও থামেনি,ভয় পায় নি,যেমন হেঁটে চলতে হয় আর সব কিছু উপেক্ষা করে ও হেঁটে যাচ্ছিলো। বিস্তারিত>> 
বই পড়া
মতীন্দ্রনাথ সরকার
পাপড়ি রহমান

লীনা দিলরুবা


উর্দু সাহিত্য
ইসমৎ চুঘতাই'এর গল্প : মুঠ্‌ঠি মালিশ
অনুবাদ : বিকাশ গণ চৌধুরী

উর্দু কথাসাহিত্যিক ইসমত চুঘতাই'এর সাক্ষাৎকার
অনুবাদক : দেবাশিস মজূমদার




ছুটির লেখা


গল্পপাঠ ।। ভাদ্র ১৪২৪।। আগস্ট-সেপ্টেম্বর ২০১৭।। সংখ্যা ৫৫
সম্পাদক : রুমা মোদক
প্রকাশক : মৌসুমী কাদের