মঙ্গলবার, ২২ ডিসেম্বর, ২০১৫

মোমিনুল আজম : ২০১৫ সালে গল্প পড়ার সালতামামি

গল্পপাঠ :১
২০১৫ সালে কত সংখ্যক গল্প পড়েছেন?


মোমিনুল আজম : ১
একসময় গল্প উপন্যাস দুই ই পড়তাম পাল্লা দিয়ে। সময় স্বল্পতার কারনে উপন্যাস এখন সেভাবে আর পড়া হয় না (এ যেন টেষ্ট ছেড়ে ওয়ান ডে এবং তার পরে টি২০ খেলা দেখার অবস্থা) তবে গল্প পড়ি নিয়মিত। সপ্তাহে দুতিনটি তো অবশ্যই। সে হিসেবে ২০১৫ সালে পঠিত গল্পের পরিমান কম নয়।



গল্পপাঠ : ২ 
কোন কোন মাধ্যম থেকে গল্পগুলো পড়েছেন?


মোমিনুল আজম : ২

দেশে থাকতে নিয়মিত গল্পের বই কিনে পড়তাম, এখন সে সুযোগ নেই তবে অন্তর্জালে এতো গল্প ছড়িয়ে ছিটিয়ে আছে যে একজনমে তা পড়ে শেষ করা যাবে না। পিডিএফ বই ডাউনলোড করে পড়ি, অনলাইন পত্রিকাগুলো থেকে পড়ি, দৈনিক, সাপ্তাহিক ও মাসিক পত্রিকাগুলোর অনলাইন ভার্সন থেকে পড়ি।


গল্পপাঠ : ৩. 
কোন কোন গল্পকারের গল্প পড়েছেন? 

মোমিনুল আজম : ৩
বিদেশি সাহিত্যঃ এ বছর পড়েছি জাপানের হারুকি মুরাকামি, কানাডার অ্যালিস মুনরো, জার্মান ছোটগল্পকার কাফকা, কলম্বিয়ার গার্বিয়েল গার্সিয়া মার্কেজ, রাশিয়ার আন্তন চেকভ, ফ্রান্সের গী দ্য মোঁপাসা, ভারতের পান্জাবী ভাষার লেখক অজিত কাউর এর অনুবাদ গল্প।
বাংলা চিরায়ত সাহিত্য-এ বছর নতুন করে পড়েছি রবীন্দ্রনাথের বেশ কিছু গল্প, বিভুতিভুষণ বন্দোপাধ্যায়ের গল্প, নরেন্দ্রনাথ মিত্র, প্রেমেন্দ্র মিত্র, নারায়ন গঙ্গোপাধ্যায়, আখতারুজ্জামান ইলিয়াস, হাসান আজিজুল হকের কালোত্তীর্ণ গল্পগুলো, আল মাহমুদের তিন চারটি গল্প।
বর্তমানের গল্পকার- সৈয়দ শামসুল হক, সেলিনা হোসেন, সৈয়দ মনজুরুল ইসলাম, রশীদ হায়দার, হাসনাত আব্দুল হাই, বিপ্রদাশ বড়ুয়া, মঈনুল আহসান সাবের, আনোয়ার শাহাদাত, নাসরিন জাহান, হুমায়ুন আহমেদ, হরিশংকর জলদাস, পূরবী বসু, পাপড়ি রহমান, নাহার মনিকা, আনিসুল হক, জাকির তালুকদার, আহমদ মোস্তফা কামাল, রাশিদা সুলতানা, উম্মে মুসলিমা, ইরাজ আহমেদ, মনি হায়দার, কুলদা রায়, মোজাফ্ফর আহমেদ, স্বকৃত নোমান সহ আরো যারা লিখছেন তাঁদের প্রায় সবার গল্পই পড়া হয়।

গল্প পড়ে ভালো লাগলেই তা আমি রেখে দেই গুগল ড্রাইভে। এটি এখন আমার সমৃদ্ধ সংগ্রহশালা।


গল্পপাঠ : ৪. 
এর মধ্যে ভালো লাগার গল্পগুলোর কয়েকটি নাম করুন। গল্পগুলো ভালো হয়ে উঠেছে কি কি কারণে সেগুলো উল্লেখ করুন।

মোমিনুল আজম : ৪
হারুকি মুরাকামির গল্প 'বিড়ালদের শহর'- রায়হান রাইন এর অনুবাদ পড়ে বিস্মিত হয়ে ছিলাম। বইয়ের একটি ঘটনার সাথে পিতা পুত্রের বাস্তব জীবন এমনভাবে মিলিয়ে দিয়েছেন যা বিশ্বখ্যাত লেখকদের পক্ষেই সম্ভব। হাসান আজিজুল হকের 'আত্নজা ও একটি করবী গাছ' আমার কাছে এপিক গল্প আগেও মনে হয়েছিলো, পুন:পাঠেও তাই মনে হয়েছে। দেশভাগের যন্ত্রণা নিয়ে লেখা গল্পটিতে উপমার যে সৃজনশীল ব্যবহার তা বিস্মিত করে। নরেন্দ্রনাথ মিত্রের 'বিকল্প' গল্পটি এ বছর পড়া আমার সেরা গল্পের একটি। সন্তানের প্রতি পিতার ভালোবাসার এর চেয়ে ভালো প্রকাশ আর হয় না, তার 'হেডমাস্টার' গল্পটিও এ বছর পড়া সেরা গল্প। ভাগীরথ মিশ্রের 'রাবণ' গল্পটিও ভালো লেগেছে কাহিনীর বিন্যাসের কারনে। রাজীব নুরের 'পিতৃত্ব' গল্পটি একই কারনে অসাধারণ মনে হয়েছে। ফারুক মঈনুদ্দীনের 'কোথায় শরণ' গল্পটি ঘটনা এবং পরিবেশ পরিস্থিতির সুক্ষাতিসুক্ষ্ন বর্ণনার কারনে ভালো লেগেছে। রাশিদা সুলতানার 'পরলালনীল' গল্পে বর্তমান সময়ের অন্ধকার জগতের যে চিত্র তুলে ধরেছেন তা সত্যি অসাধারণ। উম্মে মুসলিমা 'বৈঁচি বালিকা' গল্পে কৈশোরে পরিণত অনুভুতির যে চিত্র এঁকেছেন তা পড়ে বেশ মজাই লেগেছে।


গল্পপাঠ : ৫. 
সেরা গল্পটি নিয়ে আপনার পর্যবেক্ষণ বলুন।

মোমিনুল আজম : ৫
-আমি গল্পে ঘটনা পড়তে ভালোবাসি। সে ঘটনায় ঘণঘটা থাকতে হবে তা নয়, সামান্য ঘটনা বর্ণনা ও উপমার কারনে অসাধারণ হয়ে ওঠে। গল্পে সামাজিক অসংগতি যদি তুলে ধরা যায়, ছোটগল্পের যে চিরায়ত ফর্ম তা মেনে যদি গল্পটি লেখা হয় তাকেই আমার কাছে সেরা গল্প মনে হয়। সে বিবেচনায় এ বছর পড়া সেরা গল্পের তালিকায় আমি বিভুতিভুষণ বন্দোপাধ্যায়ের 'পুঁইমাচা' গল্পটিকে এগিয়ে রাখবো।


গল্পপাঠ : ৬. 
আপনি কি মনে করেন—এই গল্পগুলো বাংলাদেশের চিরায়ত গল্পগুলোর সমতুল্য বা তাদেরকে অতিক্রম করতে সক্ষম হয়েছে?

মোমিনুল আজম : ৬

রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর, মানিক বন্দোপাধ্যায়, বিভুতিভুষণ বন্দোপাধ্যায় , তারাশঙ্কর বন্দোপাধ্যায় যেসব গল্প লিখেছেন তার সবগুলো চিরায়ত গল্প - তা মনে করার কোন কারন নেই। তেমনি বর্তমান সময়ে অনেক অখাদ্য কুখাদ্য লেখা হচ্ছে, তার মাঝেও এমন অনেক ভালো গল্প লেখা হচ্ছে যা সময়ের প্রেক্ষাপটে চিরায়ত গল্পের তালিকায় স্থান পাবে বলে আমার বিশ্বাস।

গল্পপাঠ : ৭. 
বিদেশি গল্পের সঙ্গে এ গল্পগুলোর মানকে কিভাবে তুলনা করবেন?

মোমিনুল আজম : ৭
বিদেশি গল্পের শুধুমাত্র ইংরেজি ভার্সনটাই আমি পড়তে পারি, কিন্তু তা পড়ে আমি গল্পের যে অন্তর্নিহিত সৌন্দর্য তা পুরোপুরি উপভোগ করতে পারি না। এটা আমার সীমাবদ্ধতা। বিদেশি গল্পের সৌন্দর্য ধরতে হয় আমাকে বাংলা অনুবাদ পড়ে । অনুবাদের মান যদি ভালো না হয়, তখন গল্পটি আমার কাছে স্বভাবতই ভালো লাগবে না। বিদেশি গল্পের অনুবাদ পড়ে আমার যেটুকু মনে হয়েছে, বিদেশি গল্পের মানের সাথে পাল্লা দিতে অনেক ভালো গল্প বাংলা ভাষায় লেখা হচ্ছে। তবে বিদেশি গল্প পড়ে গল্পের আধুনিক ফর্মটা বুঝতে পারা যায়।

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন